Syed Anas Pasha

Syed Anas Pasha

লন্ডনে সেমিনার ভণ্ডুলের ঘটনায় ৫ বিএনপি কর্মীসহ ৬ জন অভিযুক্ত

লন্ডন: গত বছরের ১৬ জুলাই লন্ডন স্কুল অব ইকোনোমিক্সে আয়োজিত বাংলাদেশ বিষয়ক সেমিনার ভণ্ডুলের ঘটনায় ৫ বিএনপি কর্মীসহ ৬জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছে ব্রিটিশ পুলিশ।

বর্তমানে জামিনে মুক্ত অভিযুক্তদের আগামী ১১ জানুয়ারি সাউথ লন্ডনের কেম্বারওয়েল ম্যাজিট্রেট কোর্টে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

অভিযুক্তরা হলেন, বিএনপি’র শরিফুজ্জামান তপন, কয়সর আহমদ, দেওয়ান মোকাদ্দেম চৌধুরী নিয়াজ, আহমেদ আলী ও জুনায়েদ আহমদ এবং আওয়ামী লীগের মন্তর আলী রাজু। এই ৬ জনকে দাঙ্গা হাঙ্গামা সৃষ্টি করে সেমিনার ভণ্ডুলের জন্যে পুলিশ অভিযুক্ত করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিসি হ্যাজেল বাংলানিউজের কাছে উক্ত ৬ বাংলাদেশি বংশোদ্ভুতের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের কথা স্বীকার করে বলেছেন, নির্ধারিত দিনে অভিযুক্তদের আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। উপযুক্ত তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতেই তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়।

 সেমিনার ভণ্ডুলের ঘটনায় ৫ বিএনপি কর্মী অভিযুক্ত হওয়ায় বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ও  যুক্তরাজ্য বিএনপি সভাপতি কমর উদ্দিনের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে বাংলানিউজকে তিনি বলেন, পুলিশ অভিযোগ দায়ের করলেই কেউ অপরাধী হয় না, আদালতে তাঁর অপরাধ প্রমাণ করতে হয়। অভিযুক্ত হিসেবে আমার দলের যাদের নাম এসেছে আমরা জানি তারা নির্দোষ। আদালতের মাধ্যমে তাদের নির্দোষ প্রমাণ করার সব চেষ্টাই আমরা করবো।

আওয়ামী লীগ নেতা সুলতান শরীফের কাছে তাঁর দলের একজন অভিযুক্ত হওয়ার কারণ জানতে চাইলে তিনিও বাংলানিউজকে বলেন, অভিযুক্ত আর অপরাধী সাব্যস্থ হওয়া এক বিষয় নয়। নিজেকে রায় কেউ যদি চেষ্টা করে তাকেতো দোষ দেওয়া যায় না।

সুলতান শরীফ বলেন, ৭০ দশকের শেষের দিকে বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান লন্ডন আসলে তার বিরুদ্ধে বিােভ করতে গিয়েছিলাম আমরা। সেদিনও বিএনপি কর্মীর ছদ্ধাবরণে রাজাকার আলবদর ও তাদের সমর্থকরা আমাদের উপর হামলা চালিয়েছিল। হামলা প্রতিরোধ করতে গিয়ে আওয়ামী লীগ কর্মীরাও বাধ্য হয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। ঐ ঘটনায় হামলাকারীদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের এক কর্মীর বিরুদ্ধেও আদালতে অভিযোগ গঠন করা হয়েছিল। কিন্তু শুনানি শেষে আদালত তাকে বেকসুর খালাস দিয়েছিলেন। সুতরাং এবারের এ ঘটনায়ও আমাদের কর্মী নির্দোষ প্রমাণিত হবে, এটি আমাদের আশাবাদ। কারন সেল্ফ ডিফেন্সের কারনে কেউ অপরাধি হয়না।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১৬ জুলাই লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিক্সে ‘বাংলাদেশে গণতন্ত্র, সুশাসন ও মানবাধিকার’ বিষয়ক এই সেমিনার আয়োজন করে ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন। অল পার্টি পার্লামেন্টারি হিউম্যান রাইটস গ্র“পের (পিএইচআরজি) ভাইস চেয়ার ব্রিটেনের প্রবীন রাজনীতিক লর্ড এভিবারীর নেতৃত্বাধীন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন আয়োজিত ওই সেমিনারে আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক বৃটিশ মন্ত্রী জিম ফিটজ পেট্রিক এমপি, বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার উপদেষ্টা মশিউর রহমান, বাংলাদেশ সরকারের মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী, সাবেক আইন মন্ত্রী আব্দুল মতিন খসরু, সাবেক মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী, বিএনপি’র স্ট্যান্ডিং কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী ড. মঈন খান, বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা শওকত মাহমুদ, অ্যামেনেষ্টি ইন্টারন্যাশনালের আব্বাস ফয়েজ, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন লিবারেশন এর জেনারেল সেক্রেটারি মানবাধিকার কর্মী মেগি বাউডেনসহ যুক্তরাজ্য ও বাংলাদেশের কয়েকজন এমপি এবং আন্তর্জাতিক কয়েকটি সংগঠনের প্রতিনিধি।

অসুস্থতার জন্যে লর্ড এভিবারী উপস্থিত থাকতে না পারায় ঐদিনের সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন ব্যারোনেস পলা মঞ্জিলা উদ্দিন। সেমিনারের শুরুতে লন্ডনে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার ড. সাইদুর রহমান খানকে বক্তব্য রাখার অনুরোধ করেন সেমিনারের সভাপতি।

সেমিনারের তৃতীয় বক্তা ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সভাপতি সুলতান মাহমুদ শরীফ। তিনি বলেন, আমি এখানে এসেছি মানবাধিকার ও গণতন্ত্রের পে কথা বলতে। গণতন্ত্র শক্তিশালী করতে বর্তমান সরকার কাজ শুরু করেছে। আর মানবাধিকার? ১৯৭১ সালে যারা মানবকাধিকার লঙ্ঘন করে লাখ লাখ মানুষ হত্যা করেছে, তাদের মুখে মানবাধিকারের কথা কতটুকু শোভা পায়।

সুলতান শরীফ একথা বলার সঙ্গে সঙ্গে বিএনপি নামধারী কয়েকজন উৎশৃঙ্খল যুবক চিৎকার করে প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। এসময় পাশের সিটে বসা লন্ডন যুবলীগের রাজিবুল হক বাদশা পাল্টা প্রতিবাদ করলে তাকে চেয়ার দিয়ে আঘাত করে এক উশৃংখল যুবক। এতে ুব্ধ হয়ে উঠেন আওয়ামী লীগ কর্মীরাও। এক পর্যায়ে সেমিনারের সভাপতি ব্যরোনেস উদ্দিন বার বার মাইকে সবাইকে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার অনুরোধ জানিয়েও অনুষ্ঠানের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে ব্যর্থ হন। শেষ পর্যন্ত সেমিনারের সমাপ্তি ঘোষণা করেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ২৩১২ঘণ্টা, জানুয়ারি ১০, ২০১১
Link to Article

0 comments:

Post a comment

Popular Posts