Syed Anas Pasha

Syed Anas Pasha

হেফাজতের নয়, নারী ভোটের কথা চিন্তা করুন

সৈয়দ আনাস পাশা, লন্ডন করেসপন্ডেন্ট
বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
লন্ডন: যুদ্ধাপরাধীদের সংগঠন জামায়াতের মদদপুষ্ট হেফাজতি ভোটের কথা চিন্তা না করে দেশের অর্ধেকেরও বেশি নারী সমাজের ভোটের চিন্তা করার জন্য প্র্রধান রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি পরামর্শ দিয়েছেন বিশিষ্ট অভিনেত্রী ও আওয়ামী লীগ দলীয় সংরক্ষিত মহিলা সংসদ সদস্য তারানা হালিম, এমপি।

বৃহস্পতিবার পশ্চিম লন্ডনের কপথর্ণ তারা হোটেলে বাংলানিউজের সঙ্গে কথা হয় তারানা হালিমের।

তারানা হালিম বলেন, ‘হেফাজত নেতা আহমেদ শফী নারীদের সম্পর্কে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছেন। এই মন্তব্যের পরও যখন দেখি কোন কোন রাজনৈতিক দল এই ধর্ম ব্যবসায়ীকে আড়াল করে কথা বলেন, তখন তাদের রাজনৈতিক দেউলিয়াত্ব দেখে অবাক হই।’

তারানা হালিম বলেন, ‘নারী গার্মেন্টস কর্মীদের চরিত্র হনন করে একজন মৌলবাদী নেতার নজিরবিহীন কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের পরও যদি দেশের পাঁচ মিলিয়ন গার্মেন্টস কর্মী ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাঠে নামতে না পারেন, আগামী নির্বাচনে নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে রাজনৈতিক দলগুলোকে হেফাজতি ভোটের মোহ ত্যাগ করাতে না পারে, তাহলে আগামীতে আধুনিক রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশের টিকে থাকার বিষয়টি ঝুঁকির সম্মুখীন হবে।’

তারানা হালিম বলেন, ‘কওমি মাদ্রাসাগুলোতে ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের ইসলামী শিক্ষা দেবার নামে যে কি শিক্ষা দেয়া হয়, আহমেদ শফীর সাম্প্রতিক ভিডিও মন্তব্য জাতির কাছে তা অনেকটা পরিষ্কার করে দিয়েছে। শফীর ওই মন্তব্য মাদ্রাসা শিক্ষার আধুনিকায়ন ও এই শিক্ষা ব্যবস্থার প্রতি রাষ্ট্রযন্ত্রের নজরদারির বিষয়টিই আবারও আমাদের স্মরণ করিয়ে দেয়।’

তিনি বলেন, ‘দেশ ও জাতীর চেতনা বিরোধী অবস্থান নিয়ে আহমেদ শফী আর কওমি মাদ্রাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান পদে থাকতে পারেন না।‘

নারীদের সম্পর্কে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের পর প্রধান বিরোধী দলের শফীর পক্ষ নেওয়ার চেষ্টার প্রতিবাদ জানিয়ে তারানা হালিম এমপি বলেন, ‘বিএনপি প্রধান নারী হওয়ার পরও নারীদের সম্পর্কে উগ্র মৌলবাদী শফীদের অশালীন মন্তব্য বিরোধী দলের নেত্রীর মনে আঘাত দেয় না। তার কাছে দেশের অর্ধেক নারী ভোটের চেয়েও জামাত-হেফাজতি ভোটের গুরুত্ব বেশি।’

তিনি বলেন, ‘শফীদের ডিফেন্ড করে প্রধান বিরোধী দল দেশের নারী সমাজকে অপমান করছে। আগামী নির্বাচনে নারী ভোটের অস্ত্র প্রয়োগ করেই এই অপমানের জবাব দিতে হবে। আর এই জবাব দিতে গিয়ে প্রয়োজন নারী সমাজের ঐক্য।’

তিনি সেই ঐক্য গড়ে এখনই রাজপথে নামতে দেশের নারী সংগঠনগুলোর প্রতি আহবান জানান।

ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সেমিনারে অংশগ্রহণ সম্পর্কে বাংলানিউজের এক প্রশ্নের জবাবে সরকার দলীয় এমপি তারানা হালিম বলেন, ‘দেশের আভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে বিদেশে ধরনা দেয়ার পক্ষে নয় আওয়ামী লীগ। তবে বিদেশে এসে কেউ একতরফা দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করে যাবে সে সুযোগও আমরা দিতে চাই না। আর তাই ব্রিটিশ পার্লামেন্টের এই সেমিনারে আসা।’

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৬ ঘণ্টা, জুলাই ২০, ২০১৩


0 comments:

Post a comment

Popular Posts