Syed Anas Pasha

Syed Anas Pasha

হি ইজ স্টিল অ্যালাইভ!: আবদুর রাজ্জাকের চিকিৎসক


সৈয়দ আনাস পাশা, লন্ডন করেসপন্ডেন্ট
বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
কিংস কলেজ হাসপাতালে আইসিইউ’র বাইরে অপেক্ষমান লন্ডনে বাংলাদেশ হাই কমিশনার
ড. সাইদুর রহমান খান ও অন্যরা।ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
লন্ডন: লন্ডনের কিংস কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসকরা এখনো আবদুর রাজ্জাককে মৃত ঘোষণা করেননি। তাদের একজন বাংলানিউজকে বলেছেন, ‘হি ইজ স্টিল অ্যালাইভ। বাট নো হোপ ইজ দেয়ার।’
বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৯টার দিকে আবদুর রাজ্জাকের লাইফ সাপোর্ট খুলে দেওয়া হয়। তখনও তার শ্বাস-প্রশ্বাস চলছিলো। তবে চিকিৎসকরা বলেছেন, ধীরে ধীরে মৃত্যুর দিকেই যাচ্ছেন আবদুর রাজ্জাক। 
যেকোনো মুহূর্তেই দুঃসংবাদ শোনাতে হতে পারে বলে উল্লেখ করেন একজন চিকিৎসক।
লাইফ সাপোর্ট খুলে নেওয়ার আগে থেকেই আবদুর রাজ্জাকের শরীরে কোনো ধরনের ওষুধ কাজ করছিলো না।

এর আগে রাত পৌনে নয়টার দিকেলন্ডনে বাংলাদেশ হাই কমিশনের প্রেস মিনিস্টার রাশেদ চৌধুরী বলেন, ‘আবদুর রাজ্জাক মৃত, একখা এখনি বলা যাবে না। চিকিৎসকরা বলেছেন, এখনো তাকে মেডিকেশনের আওতায় রাখা হয়েছে। তবে ঔষধ দেওয়ার পর তার শরীর কোনো ধরনের রেসপন্স করছে না।’

লন্ডনে বাংলাদেশের হাই কমিশনার ড. সাঈদুর রহমান খানসহ কর্মকর্তারাও সেখানে উপস্থিত রয়েছেন। রয়েছেন আবদুর রাজ্জাকের স্ত্রীর ফরিদা রাজ্জাক, দুই ছেলে ও তাদের স্ত্রী, লন্ডনে কর্মরত প্রবাসী বাংলাদেশি সাংবাদিকরা।

বাংলাদেশ সময় রাত পৌনে ৯টার দিকে একজন মওলানাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে আবদুর রাজ্জাকের তওবা পড়ানো শেষ হলেই তার লাইফ সাপোর্ট পর্যায়ক্রমে খুলে নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়।

রাশেদ চৌধুরী বলেন, আমরা লাইফ সাপোর্ট খুলে নেওয়ার আগে কোনোভাবেই আবদুর রাজ্জাককে মৃত বলতে পারছি না।
এদিকে, আবদুর রাজ্জাকের মৃত্যুর খবর দিচ্ছে দেশের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম। বাংলানিউজেও খবরটি প্রকাশ করা হয়। প্রাথমিক তথ্যে আবদুর রাজ্জাকের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ে। তখনও বাংলানিউজের খবরে জানানো হয় যে, মৃত্যুর বিষয়টি জানানো হলেও তার লাইফ সাপোর্ট খুলে নেওয়া হবে আরও পরে।
রাত সাড়ে ৯টার দিকে আবদুর রাজ্জাকের বড় ছেলে নাহিন রাজ্জাক বাংলানিউজকে বলেন, পরিস্থিতি একই রকম রয়েছে।

বাংলাদেশ সময় ২১৩০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০১১ 

0 comments:

Post a comment

Popular Posts