Syed Anas Pasha

Syed Anas Pasha

যুদ্ধাপরাধের বিচারবিরোধী প্রবাসীরা জঙ্গি কানেকটেড: লন্ডনে আশরাফ


বক্তব্য রাখছেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এমপি,
পাশে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের নেতারা।
লন্ডন: যুদ্ধাপরাধ বিচারের স্বচ্ছতার প্রশ্ন তুলে যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন দেশে যারা অপপ্রচার  চালাচ্ছে তাদের অনেকের রাজনৈতিক পরিচয় ও জঙ্গি কানেকশন সম্পর্কে সরকার ভালোভাবেই অবহিত আছে। এই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সরকারমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।

রোববার বিকেলে পূর্ব লন্ডনের ইস্ট ব্যাংক কলেজ মিলনায়তনে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এই মন্তব্য করেন।

সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘বিভিন্ন সংগঠনের নামে যুদ্ধাপরাধীদের রক্ষার জন্য যারা উঠেপড়ে লেগেছেন, যারা সরকার ও যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের নামে অপপ্রচার চালাচ্ছেন, তাদের রাজনৈতিক পরিচয়, জঙ্গি কানেকশন সবকিছুর প্রমাণই সরকারের হাতে আছে।

সৈয়দ আশরাফ এই চিহ্নিত মহলটিকে হুঁশিয়ার করে দিয়ে আরো বলেন, ‘দেশের জনগণের ম্যান্ডেট নিয়ে যে বিচার শুরু হয়েছে সে বিচারের বিরুদ্ধে যারা ষড়যন্ত্র করবে, জনগণ তাদেরও অপরাধীর কাঠগড়ায় দাঁড় করাবে।’

যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান শরীফের সভাপতিত্বে  ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুকের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হরমুজ আলী, সামসুদ্দিন মাস্টার, জালাল উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল আহাদ চৌধুরী, সাজ্জাদ মিয়া, শাহ শামীম, তারিফ আহমেদ জামাল খান সেলিম খান ও ঝলক পাল প্রমুখ।

মহাজোট সরকারের অন্যতম নীতি নির্ধারক সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধীদের বিচার এ সরকারের মেয়াদকালেই শেষ হবে। কেউ ষড়যন্ত্র করে এই বিচারকে বন্ধ করতে পারবে না।’
যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে দেশে বিদেশে একটি গোষ্ঠী তৎপর রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘লন্ডন থেকে একটি মহল বিচার প্রক্রিয়াকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে কাজ করছে, এই চক্রের সাথে কে-বা কারা সক্রিয় রয়েছে সবই সরকারের নজরে আছে।’

সৈয়দ আশরাফ বলেন, ‘যারা যুদ্ধাপরাধের বিচারের স্বচ্ছতা প্রশ্ন তুলে বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে লন্ডন থেকে অপপ্রচার চালাচ্ছে তাদের অনেকের  রাজনৈতিক পরিচয়, অতীত ইতিহাস ও জঙ্গি সংশ্লিষ্টাতার প্রমাণ সরকারের কাছে আছে।’

সরকারের পররাষ্ট্রনীতি নিয়ে বিরোধী দলের সাম্প্রতিক সমালোচনার জবাবে সরকারী দলের এই প্রভাবশালী নেতা বলেন, ‘প্রতিবেশী দেশগুলোসহ সবার সাথেই বাংলাদেশের একটি সম্পর্ক চমৎকার।’

 ‘প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাংলাদেশ আজ একটি সম্মানের আসনে অধিষ্ঠিত’--একথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘বিরোধিতার খাতিরে বিরোধিতার জন্যে বিরোধী দল আজ হন্যে হয়ে ইস্যু খুঁজে মরছে। তাদের কোনও ইস্যুই জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্যতা পাচ্ছে না। তাই আজ তাদের মধ্যে এত হতাশা।‘

সরকারের বিরুদ্ধে বিরোধী দলের মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ ও অপপ্রচার মোকাবেলায় নেতা-কর্মীদের  ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বিভিন্ন ক্ষেত্রে সরকারের সফলতার খবরগুলো ঠিকমত জনগণের কাছে পৌঁছাতে পারলে বিরোধী দলের রাজনীতিই আর বেশি দিন ঠিকবে না।’

বাংলাদেশ সময়: ২২২০ ঘণ্টা, অক্টোর ১৭, ২০১১

0 comments:

Post a comment

Popular Posts