Syed Anas Pasha

Syed Anas Pasha


মুক্তিযুদ্ধের সম্মাননা নিতে ঢাকায় আসছেন বিদেশিরা


সৈয়দ আনাস পাশা, লন্ডন করেসপন্ডেন্ট
বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
লন্ডন : ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে ভূমিকা রাখায় মোট ১২৯ বিদেশিকে সম্মাননা দিচ্ছে বাংলাদেশ সরকার। ২৭ মার্চ ঢাকায় বিদেশি নাগরিকদের এই সম্মাননা দেওয়া হবে।

বাঙালির মহান মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে নিজ নিজ অবস্থান থেকে যে ১২৯ জন বিদেশি নাগরিক ভূমিকা রেখেছেন তাদের মধ্যে ব্রিটেন ও আয়ারল্যান্ডের রয়েছেন ১৫ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি।

তারা  হলেন- ব্রিটেনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী এডওয়ার্ড হিথ, সাবেক প্রধানমন্ত্রী হ্যারল্ড উইলসন, সাবেক সাংসদ লর্ড পিটার শো, সাবেক মন্ত্রী ব্রুশ ডগলাস মেন, সাবেক আইরিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী শিন ম্যাকব্রাইড, সাবেক সাংসদ মাইক্যাল বার্ন সিবিই, সাংবাদিক সায়মন ড্রিং, সাংবাদিক মার্ক টালি, ব্রিটিশ স্ট্যাম্প ডিজাইনার বিমান মল্লিক, আইরিশ নাগরিক ব্যারিস্টার নোরা শরিফ, প্রয়াত সঙ্গীতশিল্পী জর্জ হ্যারিসন, ব্রিটিশ নাগরিক বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত শিক্ষক পল কনেট ও তার স্ত্রী এলেন কনেট, সংবাদমাধ্যম বিবিসি এবং দাতব্য সংস্থা অক্সফাম।

সম্মাননার জন্যে মনোনীতদের মধ্যে এডওয়ার্ড হিথ, হ্যারল্ড উইলসন, জর্জ হ্যারিসন, লর্ড পিটার শো, ব্রুশ ডগলাস মেন, শন ম্যাকব্রাইট এখন আর বেঁচে নেই।
যারা জীবিত আছেন তাদের কেউ কেউ এবং অন্যদের প্রতিনিধিরা বাংলাদেশ সরকারের কাছ থেকে সম্মাননা নিতে ২৪ মার্চ ঢাকার উদ্দেশে রওয়ানা হচ্ছেন।

২৫ মার্চ বিশিষ্ট এই ব্যক্তিরা ঢাকায় পৌঁছবেন এবং ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। ২৭ মার্চ জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনার কাছ থেকে মহান মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্যে বিশেষ সম্মাননা নেবেন তারা।

সম্মাননাপ্রাপ্ত বিদেশিদের বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান পরিদর্শনেরও কর্মসূচি রয়েছে। সাবেক আইরিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী শিন ম্যাকব্রাইডের পক্ষে সম্মাননা নেবেন তার নাতি কেনট হোয়াইট। তিনি ঢাকার উদ্দেশে আয়ারল্যান্ড ত্যাগ করবেন ২৫ মার্চ।

মাইকেল বার্ন, বিমান মল্লিক, পিটার শোর মেয়ে মিমি মাইলস, ব্রুশ ডগলাস মেনের নাতি আলেকজান্ডার ডগলাস মেন ও বিবিসি’র পক্ষে গ্লোবাল ডাইরেক্টর পিটার জন গিবসন হরক্স সম্মাননা নিতে ঢাকার উদ্দেশে লন্ডন ছাড়বেন ২৪ মার্চ।

সাংবাদিক সায়মন ড্রিং ও মার্ক টালি এবং অক্সফামের পক্ষে জুলিয়াস ফ্রান্সিস নিজ নিজ কর্মস্থল থেকে ২৫ মার্চই ঢাকায় পৌঁছার কথা রয়েছে।

সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী এডওয়ার্ড হিথ ও হ্যারল্ড উইলসনের পক্ষে প্রতিনিধির ঢাকায় যাওয়ার বিষয়টি এখনও নিশ্চিত হয়নি।

এদিকে, সঙ্গীতশিল্পী জর্জ হ্যারিসনের স্ত্রী অলিভিয়া হ্যারিসন স্বামীর সম্মাননা নিতে ঢাকা যাওয়ার কথা থাকলেও তা এখনও নিশ্চিত হয়নি।

যুক্তরাষ্ট্রে কর্মরত ব্রিটিশ নাগরিক পল কনেট ও এলেন কনেটের যাত্রার বিষয়টিও এখনও অনিশ্চিত।

আইরিশ নাগরিক ব্যারিস্টার নোরা শরীফ ইতোমধ্যে ঢাকা পৌঁছেছেন বলে জানা গেছে।

লন্ডনে নিযুক্ত বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রেস মিনিস্টার রাশেদ চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, ব্রিটেন ও আয়ারল্যান্ড থেকে যারা ঢাকা যাচ্ছেন তাদের যাত্রার যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতা ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। ঢাকাও এসব অতিথিদের বরণ করতে পুরোপুরি প্রস্তুত।

তিনি বলেন, ‘মহান মুক্তিযুদ্ধে যেসব বিদেশি নাগরিক অবদান রেখেছেন, বাংলাদেশের জন্মের দীর্ঘ ৪০ বছর পর হলেও তাদের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেওয়া হচ্ছে, এটি কম কথা নয়। বর্তমান সরকারের এ উদ্যোগ বিদেশিদের কাছে যে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছে, তা কাজ করতে গিয়ে আমরা উপলব্ধি করছি।’

বাংলাদেশ সময় : ১০১৭ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০১২

0 comments:

Post a comment

Popular Posts