Syed Anas Pasha

Syed Anas Pasha

সরকার পতনের আন্দোলনের সাফল্য নিয়ে সংশয়: মা ও কোকোকে লন্ডনে ডাকছেন তারেক

লন্ডন: সরকার পতন আন্দোলনের সাফল্য নিয়ে সংশয়ে ভুগছেন বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। মা খালেদা জিয়াকে লাভক্ষতির হিসেব কষে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

যুক্তরাজ্য বিএনপির নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সরকার পতনের আন্দোলন ঘোষণা করে বিএনপি আসলে সরকারেরই পাতা ফাঁদে পা দিয়েছে বলে মনে করছেন তারেক। চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সেনানিবাসের বাড়ি ছাড়ার পর বিএনপি নেতাদের বক্তব্যে সেনাবাহিনীর সঙ্গে সম্পর্কের অবনতির আশঙ্কায়ও উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছেন তিনি।

যুক্তরাজ্যের বিএনপি নেতারা বাংলানিউজকে আরো জানান, দীর্ঘ প্রায় চল্লিশ বছরের স্মৃতিবিজড়িত সেনানিবাসের বাসভবন হারিয়ে মায়ের মতো ভীষণ কষ্ট পেয়েছেন তারেকও। বাড়ি ছাড়ার খবর পাওয়ার পর থেকেই স্ত্রী জোবাইদা রহমানের কাছে শৈশব-কৈশোরের স্মৃতিচারণ করে সময় কাটছে তার। বলছেন মঈনুল রোডের ওই বাসায়ই শৈশব-কৈশোরের তার বেড়ে ওঠার কাহিনী।

সূত্রমতে, কষ্ট লাঘবে মায়ের সান্নিধ্যও কামনা করছেন তারেক। তাই তাকে লন্ডন যাওয়ার অনুরোধ করেছেন তিনি।

মাকে বলেছেন, ‘তুমি এলে ছোট ভাই কোকোকেও নিয়ে আসবো লন্ডনে।’

যুক্তরাজ্য যুবদলের এক সিনিয়র নেতা বাংলানিউজকে জানান, খালেদা জিয়াও পুরো পরিবারের মনোবল চাঙ্গা করতে লন্ডন সফরের চিন্তা করছেন । নিজের মনোবল যাই থাকুক, ছেলেকে চাঙ্গা রাখতে প্রায় প্রতিদিনই ফোন করছেন তিনি। মঙ্গলবার লন্ডনে ঈদের দিন ও বুধবার বাংলাদেশে ঈদের দিন কয়েক দফা ফোনালাপ হয়েছে মা-ছেলের। ছেলের প্রতি খেয়াল রাখতে বৌমা ডা. জোবাইদা রহমানকেও অনুরোধ জানিয়েছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী।

এদিকে, তারেক মনে করছেন সরকার পতনের আন্দোলন থেকে বিএনপির কোনো লাভই হবে না । রাজপথের আন্দোলন তুঙ্গে তোলার মতো সাংগঠনিক শক্তি বর্তমান বিএনপির আছে কি না সে প্রশ্নও তুলছেন তিনি। চারদলীয় জোটগতভাবে আন্দোলন করলেও সাফল্যের সম্ভাবনা কম বলেই তার ধারণা।

যুক্তরাজ্য বিএনপি সূত্র জানায়, তারেক মনে করছেন ওয়ান-ইলেভেনের পর থেকে এ পর্যন্ত নেতাকর্মীদের ওপর যে ঝড় বয়ে গেছে তার ধকল বিএনপি এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি। তাছাড়া আন্দোলনের অন্যতম সহযোগী জামায়াতও এখন মাঠছাড়া। আন্দোলন জমাতে তারাও খুব একটা কাজে আসবে না । গত সপ্তাহের হরতালে জামায়াতের মাঠে না নামার ঘটনা বিনপির জন্য এক বড় ‘আই ওপেনার’। এতে জামায়াতের অসহায়ত্বই ফুটে উঠেছে বলে মনে করছেন বিএনপির এই ভবিষ্যৎ কাণ্ডারি।

শহীদ মঈনুল রোডের বাড়ি নিয়ে আদালতে যাওয়াও একটি ভুল সিদ্ধান্ত ছিলো বলে মনে করছেন খালেদা জিয়ার বড় ছেলে। এ নিয়ে অতি উৎসাহী আইনজীবী নেতাদের ভূমিকাতে অসন্তুষ্ট তারেক মনে করেন, বাড়িরার ইস্যুটি রাজনৈতিকভাবেই মোকাবেলা করা উচিত ছিলো। তাহলে  কোনো না কোনো সময় বাড়িটি আবার ফেরত পাওয়ার আশা ছিলো। কিন্তু আদালতের রায়ে বাড়িচ্যূত হওয়ায় অদূর ভবিষ্যতে তা ফিরে পাওয়া কঠিন হয়ে উঠেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৯, ২০১০
Link to article

0 comments:

Post a comment

Popular Posts